কানাডার আদালতে স্বীকৃতি দেওয়া সন্ত্রাসী দল বিএনপি ২০২৩ সালে এসে আবারও দেশে অরাজকতা সৃষ্টি করতে ২০০৪ সালের মতো সেই পুরনো পথে হাঁটছে

0
5380
বিএনপি

২০০৪ সালের ২১ আগস্ট বিরোধী মতকে দমন ও নিশ্চিহ্ন করার নীলনকশা বাস্তবায়ন করতে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া ও তার কুপুত্র তারেক রহমান আওয়ামী লীগের জনসভায় তৎকালীন বিরোধী দলীয় নেত্রী ও বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ওপর ন্যক্কারজনক গ্রেনেড হামলা চালায়। এতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নেতাকর্মীদের মানবঢালে প্রাণে বেঁচে গেলেও ঝরে যায় ২৪টি তাজা প্রাণ। প্রাণবন্ত বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউ মুহূর্তেই পরিণত হয় মৃত্যুপুরীতে।

[কানাডার আদালতে স্বীকৃতি দেওয়া সন্ত্রাসী দল বিএনপি ২০২৩ সালে এসে আবারও দেশে অরাজকতা সৃষ্টি করতে ২০০৪ সালের মতো সেই পুরনো পথে হাঁটছে]


২০২৩ সালে এসে জনবিচ্ছিন্ন বিএনপি এবারও দেশে অরাজকতা সৃষ্টি করতে ২০০৪ সালের মতো সেই পুরনো পথে হাঁটছে দলটি। পদযাত্রার নামে সহিংসতা-খুনের পথ বেছে নিয়েছে। সর্বশেষ ভয়াবহ তথ্য হচ্ছে, চাঁপাইনবাবগঞ্জ সীমান্ত দিয়ে দেশে আগ্নেয়াস্ত্র আনছে তারা। দেশীয় গোয়েন্দা সংস্থা এমন খবরের সত্যতা নিশ্চিত করেছে।

[কানাডার আদালতে স্বীকৃতি দেওয়া সন্ত্রাসী দল বিএনপি ২০২৩ সালে এসে আবারও দেশে অরাজকতা সৃষ্টি করতে ২০০৪ সালের মতো সেই পুরনো পথে হাঁটছে]


জানা যায়, চাঁপাইনবাবগঞ্জ বিএনপির অস্ত্র সরবরাহের বড় একটা ঘাঁটি। আগ্নেয়াস্ত্র এনে এখানে মজুত করছে তারা। সেগুলো ব্যবহার করা হবে আগস্টে আওয়ামী লীগের শান্তি সমাবেশসহ নিজ দলের সমাবেশে ষড়যন্ত্রমূলক হামলায় যাতে আওয়ামী লীগের ওপর দোষ চাপিয়ে বিদেশি শক্তির সমর্থন আদায় করতে পারে। বিএনপির স্থায়ী কমিটির একাধিক বিশ্বস্ত সূত্র থেকে জানা গেছে, আগ্নেয়াস্ত্র আনার জন্য বিপুল পরিমাণের ফান্ডিং করা হয়েছে লন্ডন থেকে। ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের নির্দেশে দলের ডোনারদের অর্থ সরবরাহের নির্দেশও দেয়া হয়। আর এটি হয়েছে খুব অল্প সময়ের মধ্যেই। ২১ আগস্টের মতোই আরেকটি ট্র্যাজেডি ঘটিয়ে আওয়ামী লীগের মনোবল নষ্ট করাই হবে বিএনপির প্রাথমিক এজেন্ডা।

আরও পড়ুনঃ

তারেক রহমান যুক্তরাষ্ট্রের স্বার্থের জন্য ভয়ংকর ক্ষতিকর, গণতন্ত্রের হুমকি

নেতৃত্বহীন ছন্নছাড়া দল বিএনপির রাজনৈতিক কর্মসূচিতে বিপুল অর্থের যোগান আসছে যেভাবে

তারেক আউট, ডিশ আলম ইন: বিএনপির রাজনীতি ও আন্দোলনের ভার এখন ডিশ আলমের কাঁধে

comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here