নির্বাচনে জয়ের নিশ্চয়তা পেলেই সংলাপে যাবে বিএনপি

0
59770
সংলাপ

বিএনপির [BNP] নেতৃবৃন্দ তাদের দলীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন ডেকে প্রতিদিন মুখস্ত বুলি আওড়ান। কথায় কথায় তারা দাবি করেন, জনগণ তাদের সাথে আছে। সরকারের পক্ষ থেকে বারংবার অনুরোধের পরেও বিএনপি [BNP] সংলাপে অংশ নেয়নি। মহামান্য রাষ্ট্রপতিকে অবজ্ঞা করে তাঁর আহ্বানে সাড়া না দিয়ে একে ‘সময়ের অপচয়’ বলে আখ্যা দিয়েছে বিএনপি।

সাধারণ জনগণের ভাবনা, নির্বাচনে জয়ের নিশ্চয়তা দিয়ে কোলে করে রাষ্ট্র ক্ষমতার গদিতে বসিয়ে না দেওয়া পর্যন্ত জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নিতে আপত্তি রয়েছে দলটির নেতা-কর্মীদের। জয়ের নিশ্চয়তা না পেলে কোনো নির্বাচনই তাদের কাছে গ্রহণযোগ্যতা পাবে না, ছহিহ্‌ বলে রায়ও দেবেন না দলটি।

সচেতন মহল বলছেন, মূলত নির্বাচনের সুষ্ঠু পরিবেশ বিনষ্ট করে এবং দেশকে অস্থিতিশীল করে পেছনের দরজা দিয়ে তারা ক্ষমতায় যাওয়ার পরিকল্পনা করছে বিএনপির শীর্ষ নেতৃত্ব। তাইতো কোটি কোটি টাকা ঢালছে লবিস্ট ফার্মগুলোর পেছনে। রাষ্ট্রে শান্তিপূর্ণ পরিস্থিতি অশান্ত করে তোলার চেষ্টা করছে প্রতিনিয়ত।

আরও পড়ুনঃ আমেরিকায় লবিংয়ের জন্য দেওয়া বিএনপির ৩১ কোটি টাকার সূত্র মিলছে না

বিএনপির সাথে রাষ্ট্রপতির সংলাপ কি হবে?

[নির্বাচনে জয়ের নিশ্চয়তা পেলেই সংলাপে যাবে বিএনপি]

প্রতিদিন মুখস্ত বুলি আওড়ান বিএনপির নেতৃবৃন্দ তাদের কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন ডেকে। কথায় কথায় তারা দাবি করেন, জনগণ তাদের সাথে আছে। যদিও মাত্র ক’দিন আগেই বিএনপির জানে-জিগরি সুহৃদ ডাকসু নেতা নুরু এক বক্তব্যে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যানসহ শীর্ষ নেতৃবৃন্দের উপস্থিতিতেই বলেছেন, ‘বিএনপি যদি পারত, তবে ১২ বছরেই পারত। তাদের সেই ক্ষমতা নেই। সবাই বাহবা দিলেও রাজপথে নামে না কেউ।’

তার এই উপলব্ধি মোটেই অমূলক নয়। বিএনপির মত একটি সন্ত্রাসী সংগঠনের সাথে জনগণ কেন থাকবে? উন্নয়নের রোল মডেল বাংলাদেশ রাষ্ট্রের জন্য বিএনপি কি আদৌ অপরিহার্য? তাদের শাসনামল কি দেখেনি জনগণ?

এখানে বলা যায়, বিএনপি-জামায়াতের সহিংস কর্মকাণ্ডের কথা কানাডার ফেডারেল আদালত একটি মামলার রায়ে উল্লেখ রয়েছে। সেখানে বলা হয়েছে, এটি প্রমাণিত, বিএনপি একটি সমসময়ই একটি সন্ত্রাসী দল।

আরও পড়ুন : বিএনপিকে ‘সন্ত্রাসী সংগঠন’ বলল ক্যানাডার আদালত

শুধু তাই নয়, বিবিসি, এএফপি, কমনওয়েলথ স্টাডিজ ইনস্টিটিউট, ফরেন পলিসি ম্যাগাজিন, ইকোনমিস্ট সাউথ এশিয়ান টেরোরিজম পোর্টাল এবং হিউম্যান রাইটস ওয়াচে বলা হয়েছে- বিএনপির হরতাল, অগ্নিসংযোগে মানুষের মৃত্যু ঘটানো, গ্রামগুলোতে ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের ওপর হামলা, ভোটকেন্দ্রে হামলা, পথ শিশুদের দিয়ে বিস্ফোরক তৈরি এবং পেট্রোল বোমা ছোঁড়ারও কাজ করায় দলটি।

আরও পড়ুনঃ

তারেক রহমানের কারণে নোংরামির শেষ স্তরে চলে গেছে বিএনপির রাজনীতিঃ বিএনপি নেতা মঞ্জু

দীর্ঘদিন ক্ষমতার বাইরে থেকেও থেমে নেই বিএনপি-জামায়াতের দেশবিরোধী ষড়যন্ত্র, গুজব ও অপপ্রচার

বিএনপি সার্কাস পার্টিতে পরিণত হয়েছেঃপাপিয়া

comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here