শিক্ষার্থীদের উস্কে দিতে ইউনিফর্ম পরে সড়কে রাজনৈতিক নেতানেত্রীরা

0
338
সোহাগী সামিয়া

বাসে হাফ-ভাড়া চালু করার দাবিতে গত কয়েকদিন রাজধানীর বিভিন্ন সড়কে আন্দোলনে নেমেছিল শিক্ষার্থীরা। এরপর মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে ১ ডিসেম্বর থেকে সেই সুবিধা বাস্তবায়ন করা হয়েছে। ফলে শিক্ষাঙ্গনে ফিরে গেছে স্কুল-কলেজের সরলপ্রাণ ছাত্র-ছাত্রীরা। তবে এরপরও সড়কে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে একটি মহল। শিক্ষার্থীদের স্কুল ড্রেস পরে মাঠে নেমেছে রাজনৈতিক নেতাকর্মীরা।

২ ডিসেম্বর, ঢাকার রামপুরায় চরম বিদ্বেষমূলক ও রাষ্ট্রবিরোধী উগ্র বক্তব্য দেওয়ার সময় আইনশৃঙ্খলা বাহিনী আটক করে স্কুল ড্রেস পরা এক তরুণীকে। এরপর বেরিয়ে আসে তার আসল পরিচয়। জানা যায়, সে আসলে কোনো স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থী না। তার নাম সোহাগী সামিয়া। সে মূলত সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের ঢাকা নগরের স্কুল ছাত্র বিষয়ক সম্পাদক। সোহাগী সামিয়ার সঙ্গে তার দলের আরো একদল নেতাকর্মীকেও দেখা গেছে রাষ্ট্রবিরোধী উগ্র স্লোগান দিয়ে সাধারণ স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীদের উস্কে দিতে।
ফেসবুক লিঙ্ক – Shohagi Samia https://www.facebook.com/shohagi.samia.5

Sajuti Khondokar
https://www.facebook.com/sajuti.khondokar.31

এছাড়াও, ২৮ নভেম্বর রাজধানীর ধানমন্ডির রাপাপ্লাজা এলাকাতেও একই ঘটনা ঘটিয়েছে বিএনপির নেতাকর্মীরা। শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের ভেতরে ঢুকে তাদের নাশকতামূলক কাজে জড়ানোর জন্য উস্কানি দিচ্ছিলো একব্যক্তি। তার বয়স দেখে শিক্ষার্থী মনে না হওয়ায়, আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরাই প্রতিহত করে তাকে। এরপর উপস্থিত পুলিশ সদস্যরা আটক করে তল্লাশি করে তাকে। সে জানায়, তার নাম হাফিজুর রহমান, সে একজন পেশাজীবী। তার পকেটে ইনজেকশন, নগদ টাকা, ঘুমের ওষুধ ও বিএনপির একজন নেতার কার্ড পাওয়া যায়।

এরপর উপস্থিত শিক্ষার্থীরা আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে জানায়, ওই ব্যক্তি দুই দিন ধরে সেখানে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে সারাদিন অবস্থান করছিল। এমনকি শিক্ষার্থীদের মধ্যে অর্থ বিতরণ ও খাবার কিনে দেওয়ার প্রস্তাবও দিয়েছিল। তবে অপরিচিত জন্য ভয়ে তার কাছ থেকে কিছু গ্রহণ করেনি সাধারণ শিক্ষার্থীরা।

comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here