অতিরিক্ত লবণ কেনায় গ্রেফতার ৩

0
3

প্রয়োজনের চেয়ে বেশি লবণ কিনে বাড়িতে ফেরার পথে হাতে নাতে ধরা পরলেন পাবনার আবদুল খালেক নামে এক ব্যক্তি। সরজমিনে জানা যায়, পাবনার চাটমোহরের স্থানীয় বাজরে লবণ কিনতে যায় আবদুল খালেক। তিনি নিজেই ১২ থেকে ১৫ কেজি লবণ কেনেন একাধিক দোকান থেকে। পরে স্থানীয় লোকজনের সহয়তায় পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে।

এদিকে প্রয়োজনের চেয়ে বেশি লবণ কিনে বাড়িতে মজুদ করে রাখলে ভোক্তাদের বিরুদ্ধেও আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন তেজগাঁও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শামীম অর রশীদ।

মঙ্গলবার রাজধানীর কারওয়ান বাজার পরিদর্শনের পর তিনি গণমাধ্যমকে এ কথা জানান।

শামীম অর রশীদ বলেন, ‘বিক্রেতাদের মধ্যে দাম বাড়ানোর কোনো প্রবণতা আমি দেখিনি। আমরা নির্দেশনা দিয়েছি, যতটুকু লবণ প্রয়োজন ততটুকু কেনার। দোকানদারদের আমরা বলেছি, কেউ যদি বেশি লবণ কিনতে চায় তাহলে আমাদের যেন জানানো হয়। আমরা তাকে ধরে জিজ্ঞাসা করবো, এক সপ্তাহে তার লবণের দরকার এক কেজি, কেন আপনি একসঙ্গে দশ কেজি লবণ কিনছেন। তিনি বলেন, এই রকম মজুদদারি যারা করবে, তাদের বিরুদ্ধে আমরা আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।

এদিকে কারওয়ান বাজারের এক ব্যবসায়ী বলেন, ‘আমার কাছে এক কাস্টমার ফোন করে বললেন, আমার জন্য দুই কেজি লবণ রাইখো। সঙ্গে সঙ্গে আরো দুইটা ফোন আসলো। সবাই লবণ আছে নাকি জানতে চাইলো। তারাও বললো লবণের কোনো সমস্যা হয়েছে নাকি। আমি এসিআই কম্পানিতে ফোন দিলে সেখান থেকে আমাকে জানালো, গোডাউনের পর্যাপ্ত লবণ আছে। কোনো দাম বাড়েনি। কিছু অসাধু লোক ফেসবুকে এগুলো ভাইরাল করে মানুষের মধ্যে আতঙ্ক সৃষ্টি করেছে। এজন্য যার সারা মাসে এক কেজি লবণ লাগে না, সে দশ কেজির জন্য পাগল করে ফেলছে।
তিনি বলেন, আমি বেলা তিনটার দিকে বাজারে (দোকানে) আসলাম। লবণের জন্য মানুষ যে কি করছে, না দেখলে বিশ্বাস করবেন না। আমি সারাদিন দোকানে বসে দশ কেজি লবণ বিক্রি করতে পারি না। আর আজ একজন মোটরসাইকেল নিয়ে এসেছে। সে পঁচিশ কেজি লবণ মোটরসাইকেলে তুলে ধাক্কায় ধাক্কায় নিয়ে যাচ্ছে। জিজ্ঞাসা করলাম, কি হয়েছে? সে বলে, কইয়েন না কইয়েন না, দুইশ টাকা কেজি লবণ বিক্রি হচ্ছে।

মন্ত্রণালয় থেকে জানানো হয়েছে, দেশে প্রতি মাসে ভোজ্য লবণের চাহিদা কম-বেশি ১ লাখ মেট্রিক টন। অন্যদিকে লবণের মজুদ আছে সাড়ে ৬ লাখ মেট্রিক টন। সে হিসাবে লবণের কোনো ধরণের ঘাটতি বা সংকট হবার প্রশ্নই ওঠে না।

লবণের দাম বৃদ্ধি সংক্রান্ত কোনো ধরনের গুজবে বিভ্রান্ত না হতে সকলের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে শিল্প মন্ত্রণালয়। বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেছেন, দেশে লবণের পর্যাপ্ত মজুদ রয়েছে, কিন্তু অপপ্রচার চালিয়ে অসাধু ব্যবসায়ীরা সুযোগ নিচ্ছে। এ বিষয়ে ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। অপপ্রচারের কারণে কিছু জায়গায় লবণের দাম বেড়েছে। দামবৃদ্ধির জন্য সাংবাদিকদেরও দায় রয়েছে বলে মন্তব্য করেন বাণিজ্যমন্ত্রী।

comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here