বিএনপির ইফতার রাজনীতি কেন জমছে না এবার?

0
3

খালেদা জিয়া কারাগারে থাকায় এবার আর জমছে না বিএনপির ইফতার রাজনীতি। তাই এবার পুরো রমজান মাসে মাত্র তিনটি ইফতার মাহফিল আয়োজন করছে দলটি। পাশাপাশি জোট শরিকদের কয়েকটি ইফতার মাহফিলে যোগ দেবেন বিএনপি নেতারা।

একটি বিশ্বস্ত সূত্র থেকে জানা গেছে, প্রতিবছর ইফতার মাহফিলের নামে বিএনপি মনা ব্যবসায়ী এবং দেশের শীর্ষ ব্যবসায়ীদরে কাছ থেকে ইফতারির বিপুল পরিমাণ চাঁদা উঠতো বিএনপির ফান্ডে। বিএনপিপন্থী অনেক ব্যবসায়ী স্বেচ্ছায় চাঁদা দিলেও সিংহভাগ চাঁদার টাকা উঠতো দেশের শীর্ষ ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে।

কিন্তু এবার পরিস্তিস্থি ভিন্ন। দলের চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া এতিমের টাকা আত্মসাতের মামলায় কারাগারে সাজাভোগ করছেন। তার নামে আরো বিভিন্ন মামলা থাকায় তার সহসায় মুক্তি নিয়ে আশাবাদী কেউই হতে পারছে না।

আবার সম্প্রতি তারেক রহমানের পাসপোর্ট কেলেঙ্কারী নিয়েও যারা টানেলের শেষবিন্দুতে আশার আলো দেখতেন তারাও হতাশ। কারণ তারেক রহমান বাংলাদেশী পাসপোর্ট ত্যাগ করে ব্রিটিশ পাসপোর্ট নিয়েছেন। তিনি যে খুব সহসায় দেশে ফিরবেন এমন কোন সম্ভাবনাও নেই। তাই ব্যবসায়ীরা মনে করছেন বিএনপির পিছনে টাকা ঢালা মানে সবটাই অপচয়।

আবার বিএনপির যেকোন কর্মসূচিতে দলটির প্রধান মিত্র জামায়াত যেভাবে টাকা ঢালতো তাও এখন আর দেখা যাচ্ছে না। মূলত যুদ্ধাপরাধীদের বাঁচাতে জামায়াত যেভাবে বিপুল পরিমাণ টাকা ঢেলেছে কিন্তু বিনিময়ে তারা কিছুই করতে পারেনি।

আবার জামায়াতের জোটসঙ্গী বিএনপির কাছ থেকেও জামায়াত ইসলামী যেভাবে সমর্থন চেয়েছে রাস্তায় নেমে বিএনপিও আন্দোলন করবে তেমনটাও তারা করেনি। এই নিয়ে দল দু’টির মধ্যে বেশ টানাপোড়েন চলছে।

বিএনপির মত রাজনৈতিক দলের ইফতার মাহফিলের মত বিপুল খরচের কথা বিবেচনায় তাই দলের হাইকমান্ড এবার ইফতার মাহফিলের বিষয়টা কাটছাট করতে বাধ্য হয়েছেন।

বিএনপি চেয়ারপারসনের প্রেসউইং থেকে জানানো হয়েছে, আগের বছরগুলোর ধারাবাহিকতায় এ বছরও প্রথম রোজায় এতিম ও ওলামা মাশায়েখদের সম্মানে ইফতার মাহফিল আয়োজন করেছিল দলটি।

একই স্থানে শনিবার দ্বিতীয় রোজায় রাজনীতিবিদদের সম্মানে বিএনপি ইফতার মাহফিল আয়োজন করে। রাজনৈতিক দলের ইফতার বললেও লেডিস ক্লাবের ইফতারে বিএনপির প্রধান মিত্র জামায়াত ইসলামীই ছিল মূলত।

comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here